প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে

মানুষের জীবনের শ্রেষ্ঠ অর্জন হল শিক্ষা। শিক্ষা প্রাপ্তি মানুষের বৃদ্ধি এবং উন্নতির একটি মূখ্য মাধ্যম। শিক্ষা মানুষের মানসিক দৃষ্টিকোণ এবং উপলব্ধির স্তর উন্নত করে তাকে সমাজের সাথে আরও সক্ষম করে। শিক্ষা অনুষ্ঠানিক এবং অনুষ্ঠানিক দুটি মাধ্যমে প্রাপ্ত হতে পারে, তবে, অনুষ্ঠানিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বা বিদ্যালয়ের কোন বিকল্প নেই।
তাই তেতুলিয়া চুনিয়া হাটি উচ্চ বিদ্যালয় দীর্ঘ দিন ধরে শিক্ষা অর্জনের লক্ষ্যে সে ভূমিকা নিষ্ঠার সাথে পালন করে আসছে । সিরাজগঞ্জের আদর্শ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে, তেতুলিয়া চুনিয়া হাটি উচ্চ বিদ্যালয় একটি প্রাকৃতিক এবং সৌন্দর্যপূর্ণ পরিবেশে অবস্থিত। এটি বিভিন্ন শিক্ষা শাখার উপলব্ধি দেয় এবং ছাত্রছাত্রীদের প্রাথমিক এবং উচ্চ শিক্ষার জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান।
গণিত সম্রাট যাদব চন্দ্র চক্রবর্তীর গ্রাম তেতুলিয়ায় অবস্থিত এই স্কুল ১৯৯৬ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। এটি একটি গ্রামীণ অঞ্চলে অবস্থিত একটি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, যা সিরাজগঞ্জ জেলার সদর উপজেলাধীন ৯ নং কালিয়া হরিপুর ইউনিয়নের তেতুলিয়া মৌজায় অবস্থিত । এটি মানবিক, বিজ্ঞান, এবং ব্যবসায় অধ্যয়নের বিভিন্ন শাখাগুলির তথ্য দিতে সক্ষম একটি সহ-শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এই প্রতিষ্ঠানটি রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের অধীনে আসে এবং এর EIIN (এডুকেশনাল ইনস্টিটিউট আইডেন্টিফিকেশন নম্বর) হল 128416। বিদ্যালয়ে ম্যানেজিং ধরণের ব্যবস্থাপনা করা হয় এবং এটি দিনের শিফটে কাজ করে। প্রতিষ্ঠানটি ৬২ নং নির্বাচনী এলাকায় অবস্থিত

জেলার পাশ দিয়ে বয়ে গেছে যমুনা নদীর পাশে হওয়ায় এটি একটি প্রাকৃতিক ও মনোরম পরিবেশে অবস্থিত। এই নদীর অনেক শাখা প্রশাখা যা তেতুলিয় ও চুনিয়াহাট দ্বয়ের মাঝখান দিয়ে প্রবাহিত।

প্রতিষ্ঠাকালীন প্রধান শিক্ষক মোঃ মসলীম উদ্দিন। আর এই দুই গ্রামের মাঝে এক মনোরম পরিবেশে এই বিদ্যালয়টি অবস্থিত । ২০০৩ সালে ১ম পাঠদান অনুমতি পায়। স্কুল বিল্ডিং ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ২২/০৩/২০১৮ সালে। এবং স্কুল ১ম নিম্ন মাধ্যমিক  এম পিও ভুক্তির তারিখ ২৩/১০/২০১৯ । এবং  ০১/০৭/২০২২ সালে মাধ্যমিক স্তরের এমপিও ভুক্তি অর্জন করে।

২ আগস্ট ২০২৩ তারিখে  সিরাজগঞ্জ-(২) সদর-কামারখন্দ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডাঃ মোঃ হাবিবে মিল্লাত মুন্না তেতুলিয়া চুনিয়া হাটি উচ্চ বিদ্যালয় নতুন চারতলা একাডেমিক ভবন শুভ উদ্বোধন করা হয়

গত ২৫ বছরে কৃতিত্বের সহিত ভালো ফলাফলের মাধ্যমে এখানকার ছাত্র ছাত্রীরা সুনাম অর্জন করে আসছে।
এবং এখানে শিক্ষক ,স্কুল কমিটি ও অভিভাবক সকলেই স্ব স্ব দায়িত্বে থেকে স্কুলের সুনামকে অক্ষুণ্ণ রেখেছে ।